ঢাবিতে খাবারের দাম আকাশচুম্বী, দাম ও মান যাচাইয়ে সরব বঙ্গবন্ধু হল ছাত্রলীগ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ক্যান্টিন ও দোকানের খাবারের মান ও দাম যাচাইয়ে ক্যান্টিন ও দোকান পরিদর্শন করেছে সংশ্লিষ্ট হল শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় সংশ্লিষ্ট ক্যান্টিন ও দোকান মালিকদের খাবারের নায্য দাম ও মান রক্ষায় সতর্ক করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) ভোররাতে সাহরি চলাকালীন সময়ে হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা হলের ক্যান্টিন ও দোকান পরিদর্শন করেন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান বলেন, শিক্ষার্থীদের অভিযোগের ভিত্তিতে হল ক্যান্টিন পরিদর্শন করি। খাবারের মান নিয়ে খাদ্যরত শিক্ষার্থীরা ইতিবাচক মতামত দিলেও দাম তুলনামূলক বেশি বলে সবার অভিযোগ ছিলো। দ্রব্যমুল্য ও অন্যান্য হলের সাথে সামঞ্জস্য রেখে বিভিন্ন খাবারের দাম ৫-১০ টাকা কমানো হয়। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগ শিক্ষার্থীদের দাবি-দাওয়া বাস্তবায়নে সর্বদা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

তিনি আরও বলেন, এধরনের শিক্ষার্থীবান্ধব কর্মকান্ড জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আগামীতেও চলমান থাকবে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল, মাস্টার’দা সূর্য সেন হল,কবি জসীম উদ্দিন হল, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল, বিজয় একাত্তর হল, মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল, সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে প্রায় সব খাবারের দাম আগের থেকে প্রায় ২০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে গেছে। খাসির মাংস ও ভাত ৬০ টাকা থেকে বেড়ে ৯০ টাকা,গরুর মাংস ও ভাত ৫৫ টাকা থেকে ৮০ টাকা, মুরগির মাংসের ভূনা ও ভাত ৪০ টাকা থেকে বেড়ে ৭০ টাকা, মাছ ৪০ টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০ টাকায়।

উল্লেখ্য, করোনার পর এই প্রথম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে থেকে একটি রমজান মাস পেল। কিন্তু হলের ক্যান্টিনগুলোর খাবারের দাম হঠাৎ করে প্রায় দেড় গুণ বেড়ে যাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন আবাসিক হলগুলোর শিক্ষার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.